কিভাবে কম্পিউটার টাইপিং স্পিড বাড়ানো যাবে?

২১ শতকের যুগে এসে 'কম্পিউটার' যন্ত্রটি আমাদের জীবনের সাথে ওতোপ্রোতো ভাবে জড়িয়ে যাচ্ছে। কম্পিউটার চালনায় দক্ষতা না থাকা বর্তমান সময়ে একটি অভিশাপের মতন। পৃথিবীতে করোনা মহামারীর হানা পাল্টে দিয়েছে আমাদের দৈনন্দিন জীবন যাপনের অনেক পদ্ধতি। আমরা ৫ বছর আগেও যে কাজগুলো খাতা-কলমে সেড়ে ফেলতাম এখন সে কাজগুলো করতে প্রয়োজন হচ্ছে একটি কম্পিউটারের। 

বলপেন দিয়ে কাগজে কোন কিছু লেখার গতির চাইতে এখন কর্মক্ষেত্রে প্রাধান্য দেয়া হয় কম্পিউটারের 'টাইপিং স্পিডকে'। আসন্ন যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য আমাদের সবাইকেই কম্পিউটার টাইপ করায় দক্ষ হতে হবে। 

কিভাবে কম্পিউটার টাইপিং স্পিড বাড়ানো যাবে,টাইপিং স্পিড বাড়ানো কেন প্রয়োজন? কীভাবে দ্রুত টাইপ করবেন?,টাইপিং স্পিড বাড়ানোর উপায়,কিভাবে টাইপিং স্পিড বাড়াবো,কিভাবে কম্পিউটারের গতি বাড়ানো যায়?

চলুন তাহলে জেনে নেই, আমরা কোন পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করে আমাদের  'টাইপিং স্পিড' বৃদ্ধি করতে পারব।

কিভাবে কম্পিউটার টাইপিং স্পিড বাড়ানো যাবে?

১. পারফেক্ট সিটিং পজিশনঃ

Computer এ Type করার সময় Desk এর চেয়ারে মেরুদন্ড সোজা করে বসতে হবে। বডিকে যতটা সম্ভব আরামদায়ক পজিশনে রাখুন । Computer এর Screen থেকে চোখের দূরত্ব 40-70 সে.মি. এর মধ্যে রাখতে হবে। বিছানা বা সোফায় বসে Typing রিলেটেড কাজ করার চাইতে  Desk এ বসে কাজ করা ভালো। কারণ, Desk বসে টাইপিং করলে Comfort-এর সাথে দ্রুত ও নির্ভুল ভাবে Typing করা যায়।

২. Home Row Key Position-Rules টি আয়ত্তে আনা:

Typing করার ক্ষেত্রে টাইপিস্টকে হাতের কন্ট্রোলে ওপর একটি বিশেষ রুলস ফলো করতে হয়। এই রুলসটাকেই বলা হয় 'Home Row Key Position'। Keyboard এর Middle Row তে A, S, D, F ও  J, K, L, ; Key গুলোর অবস্থান। Typing এর নিয়ম অনুসারে, Typing করার সময় আমাদের ডান হাতের ৪ টি আংগুলের অবস্থান A, S, D, F Key এর উপর থাকবে এবং বাম হাতের চারটি আংগুল J, K, L, ; Key এর থাকবে । 

ঠিক সেই সময় দু'হাতের বুড়ো আংগুলগুলো Backspace Key এর উপর অবস্থান করবে। 'Middle Row Key Position' টাই মূলত Typing জগতের প্রধান Rules। এই রুলসে সাথে যে যত দ্রুত Comfortable হয়ে উঠতে পারবে তার  Typing Speed তত দ্রুত বৃদ্ধি পাবে।

কিভাবে কম্পিউটার টাইপিং স্পিড বাড়ানো যাবে,টাইপিং স্পিড বাড়ানো কেন প্রয়োজন? কীভাবে দ্রুত টাইপ করবেন?,টাইপিং স্পিড বাড়ানোর উপায়,কিভাবে টাইপিং স্পিড বাড়াবো,কিভাবে কম্পিউটারের গতি বাড়ানো যায়?

৩. কী-বোর্ডের দিকে না তাকিয়ে Type করার অভ্যাস গড়ে তোলাঃ

Keyboard এর সাথে হাতের সামঞ্জস্য এসে পড়লে Screen দিকে তাকিয়ে Type করার চেষ্টা করুন। প্রথমদিকে একটু কঠিন মনে হবে, চোখ, মাথা-ব্যথা করবে। কিন্তু এসব Sacrifice করে যদি প্রতিদিন screen এর দিকে চোখ রেখে ২-১ ঘন্টা  Typing প্রাক্টিস করেন তাহলে ধীরে ধীরে তাতে অভ্যস্ত হয়ে যাবেন। একঘেয়েমি বা সমস্যা হলে অল্প সময়ের জন্য বিরতি নিন। চেষ্টা ও আগ্রহ থাকলে আপনি নিজের অজান্তেই অতি দ্রুতই কীবোর্ডর দিকে না তাকিয়ে দ্রুত গতিতে যেকোন কিছু Type করে ফেলার অভ্যাসটি অর্জন করবেন।

৪. ধীরে ধীরে প্রাক্টিস করাঃ

Computer এ Typing Practice এ নতুন হলে শুরুতে ধীর গতিতে টাইপ করুন। প্রথমদিকে টাইপিং করার সময় অবশ্যই অনেক ভুল হবে। ভুলগুলো সমাধান করে সামনে এগোতে থাকুন। বিরক্ত হওয়া যাবেনা। Typing শেখার শুরুতে তাড়াহুড়ো করলে Typing Speed বৃদ্ধি করতে প্রয়োজনের চেয়ে আরো বেশি সময় লাগবে।

যেকোন কিছু শিখার সময়ই ছোটকালের বইয়ে পড়া গল্পের এই উক্তিটি মনে করবেন, "Slow and steady wins the race."

৫. দ্রুত গতিতে নির্ভুল ভাবে ইংরেজি ও বাংলা বানান Type করার দক্ষতা অর্জনঃ

আমাদের দেশে প্রায়ই দেখা যায়, Typist দের ভালো Speed থাকা সত্ত্বেও বাংলা ও ইংরেজি বানানে দক্ষতা না থাকায় ডকুমেন্ট তৈরী করার সময় অসংখ্য ভুল বানান Type করতে। যার ফলস্বরূপ, বানানের ভুলের কারণে অফিসিয়াল কাজে ডকুমেন্টটি Reject হয় অথবা ডকুমেন্ট বাহককে ভোগান্তির শিকার হতে হয়। এ ভোগান্তি থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য অবশ্যই সঠিক বাংলা ও ইংরেজি বানান সমূহ জানতে হবে। এজন্য বুঝে বুঝে প্রচুর বাংলা ও ইংরেজি ভাষার বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। 

বই পড়ার সময় যে বানানগুলো আপনার কাছে কঠিন মনে হবে সে বানানগুলো মাথায় গেঁথে ফেলুন। প্রতিদিন প্রিয় কোন বাংলা ও ইংরেজি বই থেকে অথবা হাতের কাছে বই না থাকলে খবরের কাগজের লেখা দেখে Computer এ Typing Practice করুন। প্রতিদিন প্রাক্টিসটি ধরে রাখলে পরবর্তীতে না দেখেই যেকোন ভাষার কঠিন বানান দ্রুত সময়ের মধ্যে নির্ভুল ভাবে Type করায় অভ্যস্ত হয়ে উঠবেন।

৬. বাংলাতেও Typing Speed বাড়াতে হবেঃ

বাংলাদেশী হিসেবে ইংরেজি ভাষায় Type করার দক্ষতা অর্জনের পাশাপাশি আমাদের নিজস্ব মাতৃভাষাতেও দ্রুত গতিতে টাইপ করার দক্ষতা অর্জন করা উচিত। বাংলাভাষা কম্পিউটারে Type করা একটু কঠিন। আমাদের ভাষায় রয়েছে অসংখ্য যুক্তাক্ষর, ফলা ইত্যাদি। বাংলা Typing Software গুলোতে বাংলা Type করার নিজস্ব নিয়ম রয়েছে যা একে অপরের থেকে আলাদা। 

বাংলা Typing এর ক্ষেত্রে যে Software টি দিয়ে বাংলা Type করতে Comfort বোধ করেন Computer- এ সে Software টি install করুন। Computer এর Bangla Software অনুযায়ী বাংলা Type করার নিয়ম ফলো করে বাংলা অক্ষগুলোতে যুক্তাক্ষর, ফলা, রেফ ইত্যাদি  Type করা শিখুন। 

প্রথমদিকে সময় নিয়েই টাইপ করুন। পরবর্তীতে যদি মনে হয়, বাংলা অক্ষরগুলো টাইপ করতে Keyboard এর কোন কোন কী-গুলো দরকার হয় তা মুখস্ত করে ফেলেছেন তাহলে নিয়মগুলো না-দেখেই বাংলা টাইপ করা প্রাক্টিস করুন। 

বাংলা Type করার ক্ষেত্রেও কী-বোর্ডের দিকে না তাকিয়ে অক্ষর ও বাক্য গুলো দ্রুত গতিতে লিখার অভ্যাস করুন তাহলে একসময় তা স্থায়ী অভ্যাসে পরিবর্তন হবে। এভাবেই কম্পিউটারে বাংলায় কিছু লিখার ক্ষেত্রে বাংলার Typing Speed বাড়াতে পারবেন।

৭. চেষ্টা ও প্রাক্টিসঃ

Typing এর Speed অল্প সময়ের মধ্যে অর্জন করা সম্ভব নয়। প্রথমে সবকিছুই ধীরগতি ও মনোযোগের সাথে শুরু করতে হবে। আপনার দ্রুততা ও দক্ষতা অর্জন নির্ভর করবে আপনার শিখতে চাওয়ার আগ্রহ ও প্রাক্টিসের উপর। শিখতে চাওয়ার সময় ভুল হলে ও বেশি সময়ের দরকার হলে, 'সময় ও ভুল' এ দুটোর উপর একদমই বিরক্ত হওয়া যাবেনা। আপনাকে লক্ষ্য রাখতে হবে, "আপনি যাতে দক্ষ হতে চাচ্ছেন তা আপনাকে অর্জন করতেই হবে।"

প্রশ্ন ও উত্তর

১. টাইপিং স্পিড কিভাবে চেক করবেন?

টাইপিং স্পিড চেক করার জন্য অনেক website আছে এর মধ্যে ১-২ টি'র লিংক দিয়ে দিলাম। তবে, আপনি নিজের পছন্দের মত সাইট খুঁজেও Typing Speed Check করতে পারেন।

https://www.livechat.com/typing-speed-test/#/

২. টাইপিং স্পিড মিনিমাম কত হলে ভালো হয়?

এ ব্যাপারটা ব্যক্তির দক্ষতার সামর্থ্যের ওপর ও কাজের চাহিদার নির্ভর করবে। তবে আমার মতে, একজন Professional  Typist-এর Typing speed 65-70 wpm হলে ভালো হয়।

৩. কী-বোর্ড না দেখে টাইপ করা শিখতে কতদিন লাগবে?

শেখার প্রতি আপনার Dedication এবং Practice এর উপর নির্ভর করবে।













Previous Post
1 Comments
  • Bangladesh Dollar Buy Sell
    Bangladesh Dollar Buy Sell October 1, 2022 at 6:32 AM

    https://dollarbuyseller.com/

Add Comment
comment url