বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম

বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ করতে পারাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কোনো একটা লাইন বাংলাতে চিন্তা করার পরে সেটিকে ইংরেজিতে অনুবাদ করার প্রয়োজন আমাদের প্রায়ই হয়ে থাকে। কিন্তু আমরা অনেকেই সঠিকভাবে বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ করতে পারিনা। তাই এর জন্য আমরা বিভিন্ন ট্রান্সলেটর ইউজ করে থাকি।

কিন্তু কেমন হয় যদি আপনি গুগল ট্রান্সলেটর বা অন্য ট্রান্সলেটর ছাড়াই কোন একটা লাইনকে বাংলা থেকে ইংরেজিতে সহজে অনুবাদ করে ফেলতে পারেন? হ্যাঁ, এই আর্টিকেলের বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম গুলো মেনে চললে আপনি একসময় খুব সহজেই বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদে এক্সপার্ট হয়ে যাবেন।

বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম
বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম

বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম

বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ করতে হলে উভয় ভাষার উপর ভালো দক্ষতা থাকতে হবে। তা না হলে, সঠিকভাবে অনুবাদ করা কঠিন হয়ে যাবে। যেহেতু বাংলা আমাদের মাতৃভাষা সেহেতু বাংলা ভাষার উপর আমাদের মোটামুটি ভালো দক্ষতা রয়েছে। তবে ইংরেজিতে অনেকেরই দুর্বলতা রয়েছে।

তাই অনুবাদ শেখার পূর্বে, ইংরেজির উপর দুর্বলতাটাকে কাটিয়ে আসতে হবে। তাছাড়া দ্রুত ইংরেজি শেখার সহজ উপায়গুলো জানার মাধ্যমে আপনি ভালোভাবে ইংরেজি শেখা শুরু করতে পারেন।

সঠিক শব্দ নির্বাচন করা

কোনো একটা বাক্য অনুবাদ করতে চাইলে সবার প্রথমে সঠিক শব্দ নির্বাচন করতে হবে। সঠিক শব্দ নির্বাচন আপনার অনুবাদকে অন্য লেভেলে নিয়ে যাবে। অনেকেই সঠিকভাবে শব্দ নির্বাচন করতে পারে না। একটা উদাহরণ এর মাধ্যমে বিষয়টি লক্ষ্য করা যাকঃ

ধরুন, আপনাকে বাংলাতে একটি বাক্য দেওয়া হলো অনুবাদ করার জন্য। বাক্যটি হলোঃ “বিড়ালটি দেখতে কালো”। এইটাকে ইংরেজিতে অনুবাদ করলে হবেঃ “The cat looks black”

cat এর একটি সমার্থক শব্দ হচ্ছে grimalkin. বাক্যে কঠিন শব্দ ব্যবহার করে বাক্যকে এক্সক্লুসিভ করতে গিয়ে যদি আপনি এই শব্দটি ব্যবহার করেন, তাহলে আপনার বাক্যটি ভুল হবে।

“The grimalkin looks black” এখানে grimalkin শব্দটি দ্বারা বুড়ো বিড়ালকে বোঝায়। কিন্তু, বাংলা বাক্যটিতে বিড়ালটি কেমন তা স্পেসিফিকভাবে উল্লেখ করা নাই।

তাই, শুধু সমার্থক শব্দ জানলেই হবে না। সেই শব্দটি কোথায় কিভাবে ব্যবহার করতে হয় তা সম্পর্কেও জানতে হবে। তাহলেই, আপনি সঠিকভাবে শব্দ নির্বাচন করতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ- ইংরেজিতে কথা বলার জন্য অতি প্রয়োজনীয় কিছু শব্দ

শাব্দিক অনুবাদ ও ভাবানুবাদ

অনুবাদ দুইভাবে হতে পারে। যথাঃ (১) শাব্দিক অনুবাদ, (২) ভাবানুবাদ।

শাব্দিক অনুবাদ হচ্ছে প্রতিটি শব্দের অনুবাদ করা। অন্যদিকে ভাবানুবাদ হচ্ছে বাক্যটি দ্বারা যে ভাব প্রকাশ পাচ্ছে সেইটা অনুবাদ করা। চলুন উদাহরণের মাধ্যমে বিষয়টি ক্লিয়ার হওয়া যাক।

ইংরেজিতে একটি প্রবাদ বাক্য রয়েছেঃ- “Necessity knows no law”
বাক্যটির শাব্দিক অনুবাদ করলে হয়ঃ- “প্রয়োজনীয়তা কোন আইন জানে না”
আবার, বাক্যটির ভাবানুবাদ করলে হয়ঃ- “অভাবে স্বভাব নষ্ট”

এখন আপনাকে যদি প্রবাদ বাক্যটি দিয়ে অনুবাদ করতে বলা হয় তাহলে নিশ্চয় আপনি শাব্দিক অনুবাদ করবেন না। আপনি অবশ্যই বাক্যটির ভাবানুবাদ করবেন। তাই নয় কি?

এইটাই হচ্ছে বেপার। সবসময় শাব্দিক অনুবাদ করলে হবে না। কিছুক্ষেত্রে শাব্দিক অনুবাদ মানানসই নয়, তখন সেটার ভাবানুবাদ আপনাকে জানতে হবে। তা না হলে আপনি অনুবাদ করতে পারবেন না।

আরো পড়ুনঃ- ইংরেজি অথবা বাংলায় কন্টেন্ট লিখে অনলাইন ইনকাম

স্ট্রাকচার ঠিক করা

বাংলা বাক্য গঠন এবং ইংরেজি বাক্য গঠনের মধ্যে একটু ভিন্নতা রয়েছে। যেমনঃ “আমি বই পড়ি” → “I read books”

এখানে বাংলা বাক্যের স্ট্রাকচারটি হচ্ছেঃ subject (আমি) + object (বই) + verb (পড়ি)
ইংরেজি বাক্যের স্ট্রাকচারটি হচ্ছেঃ subject (I) + verb (read) + object (books)

ছোট ছোট বাক্য গুলো এরকম স্ট্রাকচার দিয়ে সহজেই অনুবাদ করে ফেলা যাবে। তবে কিছুক্ষেত্রে অনুবাদ করাটা একটু জটিল হয়ে পড়তে পারে। সেগুলো প্র্যাকটিস এর মাধ্যমে ঠিক হয়ে যাবে।

যতই প্র্যাকটিস করবেন ততোই ভালো ভাবে স্ট্রাকচার তৈরি করার দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন। তাই প্র্যাকটিস করার কোনো বিকল্প নেই।

মূলত এই ৩ টিই হলো বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম। যদিও আরো অনেক নিয়ম তৈরি করা যেতে পারে, কিন্তু সেগুলো প্র্যাকটিস করে করে শেখাটাই বেস্ট। কেননা সব নিয়ম সব ক্ষেত্রে কার্যকর হয় না। কোথায় কোন নিয়মে, কিভাবে অনুবাদ করতে হয় সেইটা প্র্যাকটিস ছাড়া শেখার উপায় নেই।

প্র্যাকটিস এর মাধ্যমে বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম শেখার চমৎকার একটি ভিডিও

বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম

কিছু কমন প্রশ্নের উত্তর

বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ নিয়ে আপনাদের মধ্যে কিছু কমন প্রশ্নের তৈরি হতে পারে। সেগুলোর উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করছি।

বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম জানলেই কি অনুবাদে এক্সপার্ট হওয়া যাবে?

না, বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম জানলেই অনুবাদে ভালো করা যাবে না। প্র্যাকটিস করার উপরে আপনার দক্ষতা নির্ভর করছে। আপনি যত বেশি প্র্যাকটিস করবেন ততোই ভালো করবেন।

বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ এর পূর্বে কোন কোন টপিকের উপর ভালো ধারণা থাকতে হবে?

ইংরেজি গ্রামারের টপিকগুলো অনেক ভালো মত জানতে হবে। যেমনঃ- Tense, Sentence, Parts of Speech, Article, Right form of Verbs, Clause, Relative Pronoun, Sentence Connector ইত্যাদি। এই জিনিসগুলোর উপর ভালো ধারণা না থাকলে অনুবাদ করাটা একটু কঠিন হয়ে যাবে।

বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদে এক্সপার্ট হতে কত সময় লাগতে পারে?

আসলে এই প্রশ্নের উত্তরে নির্দিষ্ট করে কিছু বলা যায় না। কেননা, আপনি কিভাবে সময় দিচ্ছেন, আপনার বেসিকটা কেমন এর উপরেই নির্ভর করছে আপনি কতদিনে এক্সপার্ট হতে পারবেন।

সমাপিকা

আশা করি বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদের নিয়ম সম্পর্কে ভালোভাবে জানতে পেরেছেন। অনুবাদ নিয়ে আপনাদের যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে তা কমেন্টে জানাতে পারেন। শেষে আবারও একই কথা বলতে চাই, বেশি বেশি প্র্যাকটিস করুন। তাহলেই দেখবেন আপনিও একদিন অনুবাদে এক্সপার্ট হয়ে উঠেছেন।

Leave a Comment