ইসলামে দ্রুত ধনী হওয়ার সহজ উপায় / দোয়া এবং আমল

সম্পদ আল্লাহর বিশেষ একটি দান। আল্লাহ যাকে ইচ্ছা সম্পদ দান করেন আর যাকে ইচ্ছা দান করেন না। কাউকে বেশি দান করেন কাউকে কম দান করেন। এবং আল্লাহ তা’আলা মানুষকে যে সম্পদ দান করেন, সেই সম্পদ থেকে আল্লাহর রাস্তায় খরচ করতে বলেছেন। যেমন সূরা বাকারার তিন নম্বার আয়াতে আল্লাহ বলেন, ومما رزقناهم ينفقون

তোমাদেরকে যে সম্পদ দেওয়া হয়েছে সেই সম্পত্তিকে খরচ করো।

যাতে মানুষের সম্পদ পবিত্র থাকে। সম্পদ পবিত্র রাখতে হলে অবশ্যই আল্লাহর রাস্তায় খরচ করতে হবে। সম্পদ বৃদ্ধি করার জন্য আল্লাহতালা মানুষের বেশ কয়টি উপায় বলে দিয়েছেন সেটা এপ্লাই করার মাধ্যমে মানুষ ধনী হতে পারে। তবে আসুন দেখে নেই ইসলামে দ্রুত ধনী হওয়ার পরীক্ষিত দোয়া বা আমল।

ইসলামে দ্রুত ধনী হওয়ার সহজ উপায়, দোয়া এবং আমল
ইসলামে দ্রুত ধনী হওয়ার সহজ উপায়, দোয়া এবং আমল

দ্রুত ধনী হওয়ার পরিক্ষিত ৬ টি দোয়া বা আমল

কে না ধনী হতে চায়। সবাই চাই ধনী হতে। দ্রুত ধনী হওয়ার জন্য পরিক্ষিত ৬ টি আমল বা দোয়া। যা জানা আমদের জন্য খুবই জরুরী। আল্লাহ কুরানের মধ্যে বেশ কিছু দ্রুত ধনী হওয়ার দোয়া বা আমল দিয়েছেন।

ইসলামে দ্রুত ধনী হওয়ার প্রথম আমল বা দোয়া

যে আল্লাহকে ভয় করে, তাকে আল্লাহ তা’আলা রিজিক বৃদ্ধি করে দেন। যেমনঃ আল্লাহ তা’আলা বলেন,

ومن يتق الله يجعل له مخرجا

উচ্চারণঃ ওয়া মায়্যাত্তাকিল্লাহা মাখরজা

অর্থঃ যে আল্লাহকে ভয় করে, আল্লাহ তা’আলা তার রিজিক বৃদ্ধি করার পথ তৈরী করে দেন।( সূরা ত্বলাক্ব- আয়তাঃ ২)

ويرزقه من حيث لا يحتسب ط

উচ্চারণঃ ওয়া য়ারজুকুহু মিন হায়ছুলা য়াহতাছিব

অর্থঃ এবং তিনি তাকে এমন উৎস থেকে রিযিক দেবেন কল্পনাও করতে পারবে না।

ইসলামে দ্রুত ধনী হওয়ার দ্বিতীয় আমল বা দোয়া

আল্লাহর উপর ভরশা করা। যেমনঃ আল্লাহ বলেন,

ومن يتوكل على الله فهو حسبه ط ان الله بالغ أمره ط قد جعل الله لكل شيء قدرا ।

উচ্চারণঃ ওয়া মাইয়াতাওয়াক্কাল আলাল্লোহি ফাহুওয়া হাছবুহ, ইন্নাল্লোহা বালিগু আমরিহ, কদ জাআলাল্লোহু লিকুল্লি শাই ইং কদরা

অর্থঃ আর যে আল্লাহর উপর সবকিছুর ক্ষেত্রে ভরশা করে আল্লাহ তার জন্য যথেষ্ট। আল্লাহ তার উদ্দেশ্য পূর্ণ করবেনই। নিশ্চয় আল্লাহ প্রত্যেক জিনিসের জন্য একটি সময়সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছেন। ( সূরা ত্বলাক্ব- আয়তাঃ ৩)

আল্লাহ তা’আলার উপর ভরসা করতে হবে। যে কোন কাজে আল্লাহর উপর ভরশা করে সম্পন্ন করতে হবে, তাহলেও আল্লাহ তা’আলা তার রজিক বৃদ্ধি করে দেবেন।

ইসলামে দ্রুত ধনী হওয়ার তৃতীয় আমল বা দোয়া

দান সাদকা করাঃ আল্লাহ বলেন,

من ذا الذي يقرض الله قرضا حسنا فيضاعفه له أضعافا كثيرة

উচ্চারণঃ মাং জাল্লাজি ইয়ুকরিদুল্লোহা করদন হাছানাং ফায়ুদ আফাহু লাহু আদাফাং কাছিরহ।

অর্থঃ কে, সে, যে আল্লাহকে করযে হাসান বা পবিত্র ঋন প্রদান করবে? তিনি তার জন্য তা বহুগুন বৃদ্ধি করবেন। (সূরা বাকারাহঃ আয়াত- ২৪৫)

আপনি হয়ত ভাবছেন যে, আল্লাহ আবার আমার থেকে কিভাবে ঋন নেবে। আর আমি কিভাবে আল্লাহকে ঋন প্রদান করব। আল্লাহকে ঋন প্রদান করা মানে হল; যদি আত্মীয় অনাত্মীয় ব্যাক্তি বিপদে পরে ঋন নিতে চায় তাহলে তাকে আল্লাহর রস্তে পবিত্র ঋন প্রদান করতে হবে। এতে তার থেকে ঐ টাকার বনিময়ে কোনো অতিরিক্ত টাকা নেওয়া যাবেনা। এটাই হলো আল্লাহকে করজে হাসানা দেওয়া। এটার বিনিময়ে আল্লাহ আপনার রিজিক বহুগুনে বৃদ্ধি করে দেবেন।

ইসলামে দ্রুত ধনী হওয়ার চতুর্থ আমল বা দোয়া

কৃতজ্ঞ ব্যাক্তি। যেমন আল্লাহ তা’আলা বলেন,

وإذ تأذن ربكم لئن شكرتم لأزيدنكم ولا كفرتم إن عذابي لشديد

উচ্চারণঃ ওয়া ইজ তাআযযানা রব্বুকুম লাইং শাকারতুম লা’আযিদান্নাকুম অলা ইংকাফারতুম ইন্না আযাবি লাশাদীদ।

অর্থঃ আর যখন তোমাদের রব ঘোষণা দিলেন যে, ‘যদি তোমরা শুকরিয়া আদায় করো তবে আমি অবশ্যই তোমাদের নিয়ামত আরো বাড়িয়ে দেব আর যদি আমার অকৃতজ্ঞ হও, তাহলে, নিশ্চয়ই আমি কঠিন শাস্তি দেবো। (সূরা ইব্রাহিম আয়াত- ৮)

এর থেকেও আমরা বুঝলাম, আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করতে হবে তাহলেই আল্লাহ তা’আলা আমাদের নিয়ামতকে আরো বেশি গুনে বাড়িয়ে দেবেন। তবে আমরা অকৃতজ্ঞ হবো না। কারণ, অকৃতজ্ঞ হলে আল্লাহ শাস্তি প্রদান করবেন।

ইসলামে দ্রুত ধনী হওয়ার পঞ্চম আমল বা দোয়া

আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাওয়া। আল্লাহ বলেন,

فقلت استغفروا ربكم إنه كان غفارا” يرسل السماء عليكم مدرارا”ويمددكم بأموال وبنين ويجعل لكم جنات ويجعل لكم أنهارا

উচ্চারণঃ ফাকুলতুছ তাগফিরু রব্বাকুম, ইন্নাহু কানা গফফারা।ওয়া য়ুম দিদকুম বি আমওয়া লিউ ওয়া বানিনা ওয়া য়াজ আল্লাকুম জান্নাতিউ ওয়া য়াজ আল্লাকুম আনহার।

অর্থঃ আর বলছি, ‘তোমাদের রবের কাছে ক্ষমা চাও; নিশ্চয়ই তিনি পরম ক্ষমাশীল’। তিনি তোমাদের উপর মুষলধারে বৃষ্টি বর্ষণ করবেন,
আর তোমাদেরকে- ধন- সম্পদ ও সন্তান- সন্ততি দিয়ে সাহায্য করবেন এবং তোমাদের জন্য বাগবাগিচা দেবেন আর দেবেন নদী- নালা । (সূরা নূহঃ আয়াত- ১০,১১,১২)

আল্লাহার কাছে বেশি বেশি ক্ষমা চাওয়া। কারন তাতে আল্লাহা তা’আলা ক্ষমা করবেন আর সাথে সাথে আমাদের কে বৃষ্টি, ধন-সম্পদ এবং সন্তান- সন্ততি দিয়ে সাহায্য করবেন।

ইসলামে দ্রুত ধনী হওয়ার ষষ্ঠ আমল বা দোয়া

আত্মীয় স্বজনদের খোজ খবর নেওয়া- আল্লাহর ঘোষণা যে, আত্মীয় স্বজনদের খোঁজ খবর নিলে আল্লাহ তার উপর রহমত দান করবেন এবং সেই সাথে নিয়ামত বৃদ্ধি করে দেবেন।

সর্বোপরি, আমরা যদি রিজিক বাড়িয়ে নিতে চায় তাহলে আমরা চেষ্টা করব এই দ্রুত ধনী হওয়ার পরীক্ষিত ৬ টি দোয়া বা আমল পালন করার। তাতে আল্লাহ তা’আলা আমাদের উপর খুশি হবেন এবং সেই সাথে দুনিয়াতে নিয়ামত বাড়িয়ে দেবেন এবং আখিরাতে নাযাতের ব্যাবস্থা করবেন।

Leave a Comment